ঢাকাবুধবার , ৮ ডিসেম্বর ২০২১
  1. অন্যান্য
  2. অপরাধ
  3. অর্থনীতি
  4. আর্ন্তজাতিক
  5. ইসলাম
  6. ক্রিকেট
  7. খুলনা
  8. খেলাধুলা
  9. চট্রগ্রাম
  10. জাতীয়
  11. জানা অজানা
  12. টিপস
  13. ঢাকা
  14. তথ্য ও প্রযুক্তি
  15. দুর্ঘটনা
সর্বশেষ সবখবর

উপস্থাপক নাহিদ রেইনসের প্রতারণার ফিরিস্তি

স্টাফ রিপোর্টারঃ
ডিসেম্বর ৮, ২০২১ ৯:২৯ অপরাহ্ন
Link Copied!

উপস্থাপক নাহিদ রেইনসের প্রতারণার ফিরিস্তি

Advertisements

স্টাফ রিপোর্টারঃ

ডা. মুরাদ হাসান কান্ডে টকশোর উপস্থাপক মহিউদ্দিন হেলাল নাহিদকে নিয়েও সারা দেশে আলোচনা হচ্ছে। বাড়ি চট্টগ্রামের পটিয়া পৌরসদরে। নিজের ফেসবুক পেইজে লাইভে লাগামহীন ও আপত্তিকর বক্তব্য দিয়ে তীব্র রোষানলে পড়েন সদ্য সাবেক তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান।

সামাজিক মাধ্যমসহ বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে অভিযোগ উঠছে, নাহিদ রেইন্স লাইভে প্রতিমন্ত্রীকে অশালীন মন্তব্য করার জন্য উসকানিমূলক প্রশ্ন করেছেন। আর এসব অভিযোগের ভিত্তিতে নাহিদের সম্পর্কে খোঁজ খবর নিচ্ছেন ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করে ডিবির যুগ্ম কমিশনার হারুন অর রশিদ গণমাধ্যমকে বলেন, আমরা যতটুকু জেনেছি, নাহিদ রেইন্স নামে ছেলেটির কাছে বোধ হয় একটি টিভি ক্যামেরা আছে। সে বিভিন্ন সময় মন্ত্রী মহোদয়কে উসকানিমূলক কথা বলেছে। তাঁর বিষয়ে আমরা খোঁজ খবর নিচ্ছি।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নাহিদ রেইন্স ওরফে মহিউদ্দিন হেলাল পটিয়া পৌর সদরের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের গোলাম রহমান সওদাগরের বাড়ির অবসরপ্রাপ্ত কাস্টম কর্মকর্তা এটিএম আবুল কাশেমের ছেলে। তাঁরা দুই ভাই। নাহিদ রেইন্সের বাবা এটিএম আবুল কাশেম দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত এবং চাচা নব্বই দশকের সময় চট্টগ্রামের ছোটপুল এলাকায় এক ছাত্র নেতাকে হত্যার দায় নিয়ে মধ্যপ্রাচ্যে পাড়ি জমিয়েছেন। নাহিদ অস্ট্রেলিয়ায় পড়াশোনা করতে গিয়ে সেখানে চুরির দায়ে বহিষ্কার হয়ে পড়াশোনা শেষ না করেই দেশে ফিরে আসেন। তার বিরুদ্ধে একাধিক প্রতারণা ও নারীকে যৌন হয়রানির অভিযোগও রয়েছে।

জানাযায়, গত ১ ডিসেম্বর রাঁতে ‘অসুস্থ খালেদা, বিকৃত বিএনপির নেতা-কর্মী’ শিরোনামে নাহিদের সঙ্গে ফেসবুক লাইভে যুক্ত হন ডা. মুরাদ হাসান। লাইভের এক পর্যায়ে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের মেয়ে জাইমা রহমানকে নিয়ে মন্তব্য করার আমন্ত্রণ জানান। ওই সময় তার অঙ্গভঙ্গি ও হাসি নিয়ে এরই মধ্যে সামাজিক মাধ্যমে নানা ট্রল হচ্ছে। তাঁর শাস্তির দাবিও তুলেছেন অনেকে।

এদিকে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা নাহিদ হেলালকে ‘প্রতারক ও অনুপ্রবেশকারী’ দাবি করে বলছেন, এক সময় জামায়াতের পক্ষে অনলাইনে প্রোপাগান্ডা চালানো এই নাহিদ হেলাল মূলত প্রতারণার অভিযোগ থেকে রক্ষা পেতেই আওয়ামী লীগকে ঢাল বানাতে চেয়েছে।

আরো জানাযায়, এক সময় অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী নাহিদ হেলাল চট্টগ্রামের হালিশহরে কে-ব্লকের হাউজিং সোসাইটিতে তাঁর বাসা ও স্টুডিও। সেখান থেকেই বিভিন্ন সময়ে তিনি লাইভ করেন। নাহিদ এখনো তাঁর হালিশহরের বাসায়ই আছেন।

বিভিন্ন সূত্রে জানাগেছে, আলোচিত এই নাহিদ হেলালের বিরুদ্ধে প্রতারণার বিস্তর অভিযোগ রয়েছে। এর মধ্যে অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন প্রবাসী মিরাজ নাঈমের কাছ থেকে কয়েক বছর আগে বাংলাদেশি মুদ্রামানে নগদ ও চেকের মাধ্যমে আট লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ অন্যতম। এ ঘটনায় নাহিদ গ্রেপ্তারও হয়েছিলেন।

মামলার অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, ‘জীবনায়ন’ নামে একটা সিনেমার প্রযোজক বানানোর কথা বলে অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী মিরাজ নাঈমের কাছ থেকে টাকা আদায় করেন নাহিদ। পরে সেই সিনেমা করা হয়নি, টাকাও ফেরত দিচ্ছিলেন না। সেই ঘটনায় নাহিদের বিরুদ্ধে আইনের আশ্রয় নেন মিরাজ। ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে নাহিদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। সে মামলায় র‍্যাব নাহিদকে আটক করার তিন দিন পর জামিনে মুক্তি পান।

তাঁর বিরুদ্ধে এই ধরনের আরও প্রতারণার অভিযোগ রয়েছে জানিয়ে আওয়ামী লীগের পক্ষে দীর্ঘদিন অনলাইনে প্রচার প্রচারণা চালিয়ে আসা চৌধুরী সাদিক জানান, নাহিদ একসময় বাংলাদেশিজম নামে একটা মুভমেন্ট চালু করেছিল। শুরুর দিকে সেই বাংলাদেশিজম থেকেই আওয়ামী লীগ বিরোধী প্রোপাগান্ডা চালানো হতো। তবে সে নিজের টাইমলাইনে চুপচাপই ছিল। সে সময় তাঁর বিরুদ্ধে মানুষকে প্রতারিত করার বিস্তর অভিযোগ ছিল। একসময় হঠাৎ কিছু নেতার সঙ্গে সখ্যতা বাড়িয়ে সে দেখলাম আওয়ামী লীগ বনে গেছে।

এমনকি খোদ আওয়ামী লীগ নেতাদের পরিবারের সঙ্গেও প্রতারণা করার অভিযোগ রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। বাংলাদেশ কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সহ-স্থানীয় সরকার বিষয়ক সম্পাদক সামিউল বাসির বিন হোসেন গণমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন, নাহিদ রেইন্স একজন প্রফেশনাল প্রতারক। আমরা মধ্যবিত্ত পরিবারের মানুষ। সরলতার সুযোগ নিয়ে আমার দুলাভাইয়ের ১২ লাখ টাকা মেরে দিয়েছিল। এ জন্য ২০১২ সালে পুলিশ তাঁকে গ্রেপ্তারও করেছিল। এরপর জামিনে মুক্ত হয়ে বহু বছর ঢাকায় আসেনি। অনেকের টাকা মেরেছে। সবচেয়ে কষ্ট লাগে, দলের অনেক হাইপ্রোফাইল নেতার সঙ্গে যখন নিয়মিত ছবি দেখি। এই ছবি গুলো প্রতারণার হাতিয়ার। যিনি ওর সঙ্গে ছবি তুলছেন, জানতেও পারছেন না হয়তো যে কত বড় একজন প্রতারকের সঙ্গে তাঁরা ছবি তুলছেন।

তবে সেই টকশোতে নাহিদের অবস্থানের সঙ্গে এই বক্তব্য একদমই সাংঘর্ষিক। টকশোতে তারেক রহমান কন্যা জাইমাকে নিয়ে মন্ত্রীর বক্তব্যের পর হাসতে হাসতে মন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে নাহিদকে বলতে শোনা যায়, ভাই সবাইকে নিয়ে তো বললেন। তারেক জিয়াকে নিয়ে কিছু বলবেন না? এরপরই তারেক জিয়ার জন্মপরিচয় নিয়ে প্রশ্ন তোলেন ডা. মুরাদ হাসান। সে সময় হাসতে হাসতে নাহিদ যোগ করেন, একটু তো প্রশ্ন থাকতেই পারে।

Advertisements

  বর্ণমেলা প্রিন্টার্স এন্ড ক্রেস্ট গ্যালারী আমাদের সেবা সমূহ:- ক্রেস্ট, সম্মাননা স্মারক, মগ, মেডেল, আইডি কার্ড, ভিজিটিং কার্ড, ক্যালেন্ডার, পোস্টার, পিভিসি ব্যানার, ষ্টিকার সহ সকল প্রকার ছাপার কাজ করা হয় এবং সকল প্রকার সীল তৈরি ও যে কোন অনুষ্ঠানের গেঞ্জী, টিশার্ট প্রিন্ট করা হয়। ঠিকানা: সিডষ্টোর বাজার, ভালুকা, ময়মনসিংহ, মোবাঃ ০১৭১৫২৫৩৩৮৫, E-mail: bornamela03@gmail.com
Translate »