ঢাকাশুক্রবার , ৩ সেপ্টেম্বর ২০২১
  1. অন্যান্য
  2. অপরাধ
  3. অর্থনীতি
  4. আর্ন্তজাতিক
  5. ইসলাম
  6. ক্রিকেট
  7. খুলনা
  8. খেলাধুলা
  9. চট্রগ্রাম
  10. জাতীয়
  11. জানা অজানা
  12. টিপস
  13. ঢাকা
  14. তথ্য ও প্রযুক্তি
  15. দুর্ঘটনা
300x250
সর্বশেষ সবখবর

যে ব্যাংকে ভালোবাসা জমা রাখা যায়

অনলাইন নিউজ ডেস্ক
সেপ্টেম্বর ৩, ২০২১ ১১:৩৭ পূর্বাহ্ন
Link Copied!

অর্থকড়ির মতো ভালোবাসাও কি ব্যাংকে জমা রাখা সম্ভব? স্লোভাকিয়ায় এ অসম্ভব কাজই সম্ভব হয়েছে। সেখানে ব্যাংকে জমা রাখা হচ্ছে ভালোবাসা। এ জন্য রয়েছে ভল্ট। আর সেই ভল্টে রয়েছে প্রায় ১ লাখ ছোট ছোট ড্রয়ার।

ভালোবাসা আমানত রাখা ওই ব্যাংকের নাম ‘লাভ ব্যাংক’। এ ব্যাংকে ঠিক সরাসরি ভালোবাসা জমা রাখা যাচ্ছে না। তবে ভালোবাসার স্মারক রাখা যাচ্ছে ব্যাংকটির ভল্টে। যে কেউ সেখানে বাগদানের আংটি, চিঠি, এমনকি প্রথম একসঙ্গে দেখা সিনেমার টিকিটও জমা রাখতে পারবেন।

ভালোবাসা জমা রাখার এ ভল্টের পেছনে একটি ইতিহাস রয়েছে। স্লোভাকিয়ার মধ্যাঞ্চলীয় শহর বানস্কা স্তিয়াভনিসার যে বাড়িতে ভল্টটি বানানো হয়েছে, সেটির নাম হাউস অব মেরিনা। এই মেরিনা ছিলেন কবি আন্দ্রেজ স্লাদকোভিসের প্রেমিকা। কিন্তু মেরিনার বাবা দরিদ্র আন্দ্রেজকে পছন্দ করেননি। তিনি মেয়েকে বিয়ে দিয়েছিলেন এক ধনীর ছেলের সঙ্গে। এই বিরহে ২ হাজার ৯১০ পঙ্ক্তির দীর্ঘ এক প্রেমের কবিতা লিখেছিলেন আন্দ্রেজ। ১৮৪৬ সালে কবিতাটি প্রকাশ হয়। সেই কবিতাটি দিয়েই মুড়ে দেওয়া হয়েছে লাভ ব্যাংকের ভল্টটি। ওই ভল্টের ড্রয়ারে ভালোবাসার স্মারক জমা রাখতে পারবেন যে কেউ। ব্যবহারকারীর অনুমতি ছাড়া ওই ড্রয়ার খোলা হবে না।

লাভ ব্যাংকের ওই ভল্ট ব্যবহার করছেন স্লোভাকিয়ার এলিস্কা গ্যালিসোভা ও তাঁর প্রেমিক ম্যাতুজ রেজনি। এলিস্কা বলেন, ‘ভালোবাসা কত দিন স্থায়ী হলো কিংবা কতটা বাধা পেল, এটা বড় কথা নয়। বড় কথা হলো ভালোবাসা যখন থাকে, আমি মনে করি, তখন গল্পটা অনেক সুন্দর হয়।’

বর্ণমেলা প্রিন্টার্স এন্ড ক্রেস্ট গ্যালারী আমাদের সেবা সমূহ:- ক্রেস্ট, সম্মাননা স্মারক, মগ, মেডেল, আইডি কার্ড, ভিজিটিং কার্ড, ক্যালেন্ডার, পোস্টার, পিভিসি ব্যানার, ষ্টিকার সহ সকল প্রকার ছাপার কাজ করা হয় এবং সকল প্রকার সীল তৈরি ও যে কোন অনুষ্ঠানের গেঞ্জী, টিশার্ট প্রিন্ট করা হয়। ঠিকানা: সিডষ্টোর বাজার, ভালুকা, ময়মনসিংহ, মোবাঃ ০১৭১৫২৫৩৩৮৫, E-mail: bornamela03@gmail.com